কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে কচুয়ায় ভোটগ্রহণ সম্পন্ন

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

আহসান হাবীব সুমন
কিছু বিচ্ছন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে কচুয়ায় ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল রোববার কচুয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উপজেলার ১০৯টি কেন্দ্রে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে দিয়ে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে সহিংসতা ও বিশৃঙ্খলার ঘটনায় ৩ জনকে পুলিশ আটক করেছে।
আটকরা হলেন- পশ্চিম সহদেবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মোস্তফা কামাল, বুধুন্ডা গ্রামের জসিম ও আতিশ্বর গ্রামের জামাল হোসেন।
সকালে ঘাগড়া কেন্দ্রে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহজালাল প্রধানের উপর আক্রমন হয়। এসময় দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় অন্তত ৩ জন আহত হয়। আহতদের একজন কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও দুইজন কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেয়।
দুপুর ১২টার সময় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ফয়েজ আহমেদ স্বপন নন্দনপুর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে বের হওয়ার সময় বিদ্যালয় গেটে কিছু উশৃঙ্খল যুবক তার গাড়িতে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এসময় ওই কেন্দ্রের নৌকা প্রতীকের এজেন্ট ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মোস্তাফা কামালকে পুলিশ আটক করে।
কচুয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১২টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় ১০৯ কেন্দ্রে ২ লাখ ৬৫ হাজার ৪শ’ ৬৬ জন ভোটারের মধ্যে আনুমানিক ৩০ হতে ৩৫% ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছে।
কচুয়া উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার আনোয়ার হোসেন জানান, দু’একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। ১০৯ ভোট কেন্দ্রের কোন কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বন্ধ হয়নি।