মতলব দক্ষিণে অটো রিকশা চালকদের সড়ক অবরোধে জনদুর্ভোগ

মতলব সেতু দিয়ে যাত্রী নিয়ে উত্তরে যেতে বাধা দেওয়ায়

মাহফুজ মল্লিক
মতলব দক্ষিণ ও মতলব উত্তর উপজেলার মধ্যবর্তী ধনাগোদা নদীর ওপর স্থাপিত মতলব সেতুর দক্ষিণ পাড়ে মতলব দক্ষিণ-দাউদকান্দি সড়ক অবরোধ করে রাখেন স্থানীয় অটো রিকশা চালকেরা। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত সড়কে গাছ ফেলে এ অবরোধ কর্মসূচি পালন করেন তারা। পরে বেলা ১১ টায় মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহিদুল ইসলাম এবং মতলব দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ কে এম এস ইকবাল ঘটনাস্থলে যান এবং বিক্ষুব্ধ অবরোধকারীদের সঙ্গে কথা বলেন। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে সমস্যার সমাধানের আশ্বাস দিলে বেলা ১১টার পর থেকে মতলব দক্ষিণের অটো রিকশা চালকেরা অবরোধ তুলে নেন।
মতলব সেতুর দক্ষিণ পাড়ে দেখা যায়, ভাঙ্গারপাড়া এলাকায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন স্থানীয় কয়েকশ’ অটো রিকশা চালক। এ সময় মতলব সেতুর দুই পাড় ও গৌরিপুর-চাঁদপুর সড়কে আটকা পড়ে ট্রাক, বাস, মাইক্রোবাস, ট্রলি, সিএনজি চালিত অটো রিকশা ও ইজি বাইকসহ কয়েক শ’ যানবাহন। ঢাকা থেকে দাউদকান্দি হয়ে মতলব দক্ষিণ ও চাঁদপুর এবং চাঁদপুর থেকে মতলব দক্ষিণ ও মতলব উত্তর হয়ে দাউদকান্দি এবং ঢাকা-চট্টগ্রামের উদ্দেশে ওই সড়কপথে রওনা দেওয়া অনেক যাত্রীকে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। বেলা ১১ টায় মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহিদুল ইসলাম এবং মতলব দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ কে এম এস ইকবাল ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষুব্ধ অবরোধকারীদের সমস্যার সমাধানের আশ্বাস দিয়ে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করেন।
মতলব দক্ষিণ উপজেলা অটোরিকশাচালক সমিতির সভাপতি শাহপরান মিয়া এবং সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা খান অভিযোগ করেন, গত জানুয়ারিতে মতলব সেতুটি চালু করা হয়। এটি চালুর পর থেকে এর ওপর দিয়ে মতলব উত্তর উপজেলা থেকে চালকেরা অটোরিকশা নিয়ে সরাসরি মতলব দক্ষিণ উপজেলায় আসতে পারছেন। কিন্তু মতলব দক্ষিণ উপজেলা থেকে ওই সেতু হয়ে অটোরিকশা নিয়ে চালকেরা সরাসরি মতলব উত্তর এবং দাউদকান্দি যেতে পারছেন না। মতলব সেতুর উত্তর পাড়ে গিয়ে অটো রিকশা বদল করতে হয়। মতলব উত্তর উপজেলার অটো রিকশা চালকেরা নানা ভাবে মতলব দক্ষিণ উপজেলার অটোরিকশা চালকদের গাড়ি থামিয়ে হয়রানি করেন। এসব কারণে তাঁরা সড়ক অবরোধ করেন। তাঁরা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, আগামী ৭ দিনের মধ্যে তাঁদের এ দাবি মানা না হলে আরও বৃহত্তর ও কঠিন কর্মসূচি দেবেন।