হাইমচরে জমি সংক্রান্ত বিরোধে গৃহবধূর উপর প্রতিপক্ষের হামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা
হাইমচর উপজেলার চরভৈরবী ইউনিয়নের জালিয়ারচর হাওলাদার কান্দি গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধে গৃহবধূর উপর প্রতিপক্ষের হামলা। গুরুতর আহত গৃহবধূকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। হামলার ঘটনায় এলাকায় টান-টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। ভুক্তভোগী অসহায় পরিবারটি স্থানীয় সংসদ সদস্য শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
জানা যায়, গতকাল শনিবার সকাল ৮টায় স্থানীয় প্রভাবশালী রুহুল আমিন বেপারী ও তার ছেলে বিল্লাল বেপারী, মিলন বেপারী, ছাদেক বেপারী এবং ওচমান বেপারীর ছেলে আনিছ বেপারী জোরপূর্বক স্থানীয় রুবেল বেপারীকে বসতবাড়ি থেকে উচ্ছেদের উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। হামলায় রুবেল বেপারীর স্ত্রী জয়নব বেগম (৩৫) গুরুতর আহত হয়েছেন। আহত জয়নব বেগমকে প্রথমে হাইমচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য চাঁদপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
আহত জয়নব বেগমের স্বামী রুবেল বেপারী জানান, দীর্ঘদিন থেকে রুহুল আমিন বেপারী এবং তার ক্যাডার বাহিনী আমার বসত বাড়ি দখলের জন্য আমাকে বিভিন্নভাবে হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে। এ নিয়ে ইতোপূর্বে চাঁদপুর কোর্টে এবং হাইমচর থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। কোর্টে মামলাটি চলমান থাকা স্বত্বেও গতকাল তারা আমার অনুপস্থিতিতে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে আমার বাড়িতে হামলা চালিয়ে ঘর দরজা ভাঙচুর করে। আমার স্ত্রী বাঁধা দিলে তারা আমার স্ত্রীর উপর হামলাচালিয়ে মারাত্মকভাবে জখম এবং শ্লীলতাহানি করে। প্রতিবেশীরা খবর পেয়ে আমার স্ত্রীকে উদ্ধার করে হাইমচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। আমরা এর সুষ্ঠু সমাধানের লক্ষে ডা. দীপু মনির একান্ত সহযোগিতা কামনা করছি।