আজ নির্বাচিত চাঁদপুর পৌর পরিষদের শপথ

ইলশেপাড় রিপোর্ট
আজ শনিবার (২৪ অক্টোবর) চাঁদপুর পৌরসভার নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের আনুষ্ঠানিক শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গত ১০ অক্টোবর নির্বাচনের মধ্য দিয়ে মেয়র, সংরক্ষিত ও সাধারণ কাউন্সিলররা প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত হয়েছিলেন। আজ সকাল ১১টায় চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে নির্বাচিত ২১জন পৌর জনপ্রতিনিধির শপথ বাক্য পাঠ করাবেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ।
চাঁদপুর পৌরসভাকে নান্দনিক, বাণিজ্যিক ও পর্যটন নির্ভর প্রতিশ্রুতি নিয়ে ভোটের মাঠে অংশ নিয়েছিলেন প্রার্থীরা। নির্বাচনে প্রতিশ্রুত প্রার্থীরাই বেসরকারিভাবে জয়লাভ করেছেন। ইতোমধ্যে সরকারিভাবে গেজেট প্রকাশ করা হয়। গত ১৫ অক্টোবর বিভাগীয় উপ-সচিব মো. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত ঐ গেজেট প্রকাশ করা হয়। ফলে আজ শনিবার নির্বাচিত প্রার্থীদের শপথগ্রহণের সব প্রস্তুতি শেষ করেছে চাঁদপুরের প্রশাসন।
শপথগ্রহণের মধ্য দিয়ে চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র হিসেবে আনুষ্ঠানিক দায়িত্বগ্রহণ করবেন স্বপ্নের চাঁদপুর নির্মাণের তরুণ রাজনীতিবিদ অ্যাড. মো. জিল্লুর রহমান জুয়েল। ফলে বর্তমান মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ কেবল তার স্থালাভিষিক্ত নতুন প্রতিনিধি অ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েলকে দায়িত্ব হস্তান্তর করবেন এবং তার পৌর পরিষদের কর্র্মময় দিনগুলোকে কেবল এখন থেকে অতীত হিসেবেই দেখবেন। পাশাপাশি তার দায়িত্ব পালনকালীন সময়কে মূল্যায়নের জন্য পৌরবসীর উপরেই ছেড়ে দিবন।
চাঁদপুর জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আজ শনিবার চাঁদপুর পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র মো. জিল্লুর রহমান, সাধারণ ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরদের শপথ অনুষ্ঠিত হবে সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে। শপথ বাক্য পাঠ করাবেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ।
মেয়র হিসেবে শপথ নিবেন জিল্লুর রহমান জুয়েল। এছাড়া কাউন্সিলর পদে ১নং ওয়ার্ডে মোহাম্মদ আলী মাঝি, ২নং ওয়ার্ডে মো. মালেক শেখ, ৩নং ওয়ার্ডে আ. লতিফ গাজী, ৪নং ওয়ার্ডে মামুনুর রহমান দোলন, ৫নং ওয়ার্ডে সাইফুল ইসলাম ভূইয়া, ৬নং ওয়ার্ডে সোহেল রানা, ৭নং ওয়ার্ডে শফিকুল ইসলাম, ৮নং ওয়ার্ডে অ্যাড. মো. হেলাল হোসাইন, ৯নং ওয়ার্ডে চান মিয়া মাঝি, ১০নং ওয়ার্ডে মো. ইউনুছ শোয়েব, ১১নং ওয়ার্ডে ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, ১২নং ওয়ার্ডে হাবিবুর রহমান দর্জি, ১৩নং ওয়ার্ডে আলমগীর গাজী, ১৪নং ওয়ার্ডে খায়রুল ইসলাম নয়ন ও ১৫নং ওয়ার্ডে অ্যাড. কবির হোসেন চৌধুরী।
এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে ফেরদৌসী আক্তার; ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে খালেদা রহমান; ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে মিসেস ফরিদা ইলিয়াস; ১০, ১১ ও ১২নং ওয়ার্ডে আয়েশা রহমান এবং ১৩, ১৪ ও ১৫নং ওয়ার্ডে মোসাম্মৎ শাহিনা বেগম।
প্রথমবারের মতো তারুণ্যনির্ভর জনপ্রতিনিধিরা চাঁদপুর পৌরসভার দায়িত্বগ্রহণ করতে যাচ্ছেন। তারা নির্বাচনে পৌরবাসীর কাছে নানা প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন। তার মধ্যে অন্যতম ছিলো ঐতিহ্য, নান্দনিকতা, বাণিজ্যিক ও পর্যটন নির্ভর চাঁদপুর। যা নয়া পৌর পরিষদের কাছেও প্রত্যাশিত ছিলো পৌরবাসীর।
পৌরবাসী আশা করছে নির্বাচিত পরিষদ সর্বসাধারণের জন্য সেবার মান বৃদ্ধির লক্ষ্য কাজ এবং দীর্ঘদিনের হয়রানি মুক্ত সেবা প্রদান করবেন। তাদের প্রত্যাশা যে কোন আবেদন কিংবা সেবার ক্ষেত্রে হাতে হাতে লেনদেনের বিপরীতে কেবল ব্যাংকের লেনদেন হলে অনেকাংশেই দুর্নীতি মুক্ত থাকবে পৌরসভাটি।
এক্ষেত্রে নির্বাচিত এই পরিষদ তাদের প্রতিশ্রুত কথা রাখবেন বলেও পৌরবাসী আশা করছেন। বিশেষ করে নির্বাচিত মেয়রের কাছেই প্রত্যাশা বেশি পৌরবাসীর। তাদের দাবি মেয়র হিসেবে তিনি প্রতিশ্রুত কথা ও তার উত্তরসুরীর রেখে যাওয়া পৌর সিন্ডিকেটটিকে ভেঙে দিতে সক্ষম হবেন।
২৪ অক্টোবর, ২০২০।