চাঁদপুরে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান উপলক্ষে মতবিনিময় ও নৌ-র‌্যালি

জেলেদের পেছনে যারা রয়েছে তাদেরও আইনের আওতায় আনতে হবে
………শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি

এস এম সোহেল
‘নৌ পুলিশ কে সহযোগিতা করি, নিষিদ্ধকালীন মা ইলিশ না ধরি’ এ স্লোগানে চাঁদপুরে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান-২০২২ উপলক্ষে মতবিনিময় সভা ও নৌ-র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) সকাল ১১টায় বঙ্গবন্ধু পার্ক বড়স্টেশন মোলহেডে নৌ পুলিশ চাঁদপুর অঞ্চলের আয়োজনে অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, রাজনৈতিক, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, জেলে প্রতিনিধি, জেলেরাসহ বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গ ও সুধীজন অংশ নেয়।
মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, বছরের ২ বারের জন্য অভয়াশ্রমের ঘোষনা করে সরকার। এ ২টি অভয়াশ্রম ছাড়া সারা বছর জেলেরা নদীতে মাছ ধরতে পারছে। তখন কেউ জেলেদের মাছ ধরতে নিষেধ করছে না। মা ইলিশ রক্ষায় ২২ দিন অর্থাৎ ৩ সপ্তাহ মাছ না ধরলে নদীতে মাছের উৎসব দেখা যাবে। দেশের সম্পদ নষ্ট করে এমন ব্যক্তি যে হোক না কেন তাকে আইনের আওতায় আনতে হবে। আগে রাষ্ট্রের সম্পদ আমাদের রক্ষা করতে হবে। আর জেলেদের পেছনে যারা রয়েছে তাদেরও চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে হবে।
তিনি আরো বলেন, ইলিশ উৎপাদনে সারা বিশ্বে বাংলাদেশ প্রথম। আর সবাই মিলে চাঁদপুরের ইলিশ সম্পদ রক্ষা করতে হবে। রাষ্ট্রের সম্পদ রক্ষায় পুলিশ কাজ করছে। তাদের উপর হামলা দুঃখজনক। রাষ্ট্রের বাইরে গিয়ে কাজ করা কারো কাম্য নয়।
সম্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ নৌ-পুলিশের অতিরিক্ত আইজি মো. শফিকুল ইসলাম। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ইলিশের বাড়ি চাঁদপুর এটা গর্বের বিষয়। এই সম্পদ রক্ষণা-বেক্ষণের দায়িত্ব আপনার-আমার সবার দায়িত্ব। সরকার কারো কাছে মাথা নত করে না। সরকার তার আইন বাস্তবায়নে কঠোর। মা ইলিশ রক্ষায় সরকার কোটি কোটি টাকা খরচ করছেন। পুলিশ সরকারের আইন বাস্তবায়ন করে। আগামিতে শুধু জেলে নয়, যারা তাদের নদীতে পাঠায় এদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে। তাই এখনো সময় আছে, সবাই সচেতন হয়ে যান।
চাঁদপুর অঞ্চলের নৌ-পুলিশ সুপার মোহাম্মদ কামরুজ্জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ ও চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মো. জিল্লুর রহমান জুয়েল।
সাংবাদিক এমআর ইসলাম বাবুর পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন সিনিয়র বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা আশরাফুল আলম, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন মিলন, রাজরাজেশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান হাজি হযরত আলী বেপারী, চাঁদপুর পৌরসভার কাউন্সিলর ফরিদা ইলিয়াস, কাউন্সিলর শফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ কান্ট্রি ফিসিং বোর্টের সভাপতি শাহ আলম মল্লিক, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ সভাপতি মালেক দেওয়ান, সাধারণ সম্পাদক মানিক মিয়া দেওয়ান।
মতবিনিময় সভা শেষে বড় স্টেশন মোলহেড থেকে একটি নৌ-র‌্যালি বের হয়ে হাইমচর উপজেলার নীলকমল পর্যন্ত প্রদক্ষিণ করে।

১৪ অক্টোবর, ২০২২।