চাঁদপুর আবারো সক্রিয় কিশোর গ্যাং, ২ দিনে আহত ৩ শিক্ষার্থী

হাত বাড়ালেই মিলছে দেশীয় অস্ত্র

এস এম সোহেল
কখনো সিনিয়র-জুনিয়র, কখনো খেলাধুলা, কখনোবা নারী সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে শান্ত শহর চাঁদপুরকে আবারো অস্থিতিশীল করছে কিশোর গ্যাং। পুলিশের শিথিলতার ভূমিকার কারণে বেশকিছু দিন বন্ধ থাকার পর গত দুই দিন ধরে হঠাৎ করে সক্রিয় হয়ে উঠেছে তারা। তবে পুলিশের অভিযানে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যদের আটক করে থানায় নিয়ে আসা হলে অভিভাবক ও রাজনৈতিক নেতাদের তদবিরে বিপাকে পড়তে হয় বলে জানান পুলিশ।
উঠতি বয়সের তরুণরা স্বল্পমূল্যে দোকান থেকে অস্ত্র ক্রয় করে নিজেদের প্রয়োজনে ব্যবহার করছে বলে জানান ভুক্তভোগী পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শীরা।
সোমবার (২১ মার্চ) সন্ধ্যায় শহরের মেথা রোড বিএনপি দলীয় কার্যালয়ের সামনে ২ শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে রক্তাক্ত যখম করা হয়।
আহতরা হলেন- শহরের জোড়পুকুর পাড় এলাকার খালিদুর রহমানের ছেলে ফাহিম (১৭) ও তার সহপাঠী সিয়াম (১৭)। তারা দু’জনই চাঁদপুর আল-আমিন একাডেমী স্কুল এন্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী। ফাহিম চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আর সিয়াম প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে চলে যায়।
জানা যায়, সিনিয়র-জুনিয়র নিয়ে চাঁদপুর শহরের প্রেসক্লাব ঘাটের ডাকাতিয়া নদীর পাড়ে গত রোববার দুপুরে মোরছালিন নামের এক যুবককে কুপিয়ে রক্তাক্ত যখম করা হয়। পরের দিন সোমবার সন্ধ্যায় একই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফাহিম (১৭) ও সিয়াম (১৭) নামের দুই যুবককে কুপিয়ে রক্তাক্ত যখম করা হয়। ফাহিমের পিঠে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কয়েকটি কোপ দেওয়ায় তার অবস্থা বেগতিক।
কয়েকজন অভিভাবকের সাথে কথা হলে তারা জানায়, শহরের ১ থেকে ৯৯ টাকার, ৩০০ টাকার মার্কেটসহ বিভিন্ন ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে উঠতি বয়সের যুবকদের কাছে স্বল্পদামে দেশীয় ধারালো অস্ত্র বিক্রয় করা হচ্ছে। চাঁদপুরের সাবেক পুলিশ সুপার শামসুন্নাহারের সময়ের কয়েকটি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান চিহ্নিত করে ও কিছু দেশীয় অস্ত্র জব্দ করার তিনি পর সর্তক করে দেন। তখন কিছে দেশীয় অস্ত্রের প্রভাব হ্রাস পেলেও বর্তমানে তা আবার বেড়ে গেছে। প্রশাসনের পুনঃরায় নজরদারি করার প্রয়োজন।
চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আব্দুর রশিদ জানায়, সন্তানরা কোথায় কার কাছে, কার সাথে মেলামেশা করছে অভিভাবকরা খেয়াল রাখুন। কোন ধরনের আবেগী কান্না গ্রহণযোগ্য হবে না। কিশোর গ্যাং নির্মূলে পুলিশের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

২১ মার্চ, ২০২২।