জিলানী চিশতী উবিতে সংবর্ধনা ও স্কুল ড্রেস বিতরণ

স্টফ রিপোর্টার
চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহতলী জিলানী চিশতী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও বিনামূল্যে স্কুল ড্রেস বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (১২ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় বিদ্যালয় মিলনায়তনে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সোহেল রুশদীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোছাম্মৎ রাশেদা আক্তার।
তিনি তার বক্তব্যে বলেন, করোনা মহামারি থেকে রক্ষা পেতে হলে আমাদের সবাইকে টিকা গ্রহণ ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। তোমাদের সবাইকে টিকা গ্রহণ করতে হবে। তোমাদের নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছানোর জন্য এখনই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তোমাদের এ বিদ্যালয়ের পাশেই একটি কলেজ রয়েছে। তোমরা সেখানে ভর্তি হতে পারবে। তোমাদের আগে ভালো মানুষ হব, তারপর ভালো শিক্ষার্থী হতে হবে। কাউকে পিছনে রেখে, কেউ জীবনে উন্নতি করতে পারে না। একা একা কোন কিছু করা সম্ভব না। সকলে মিলেমিশে কাজ করতে হবে। তাহলে সফলতা আসবে। তোমাদের নিজের স্বপ্ন নিজেকেই দেখতে হবে। আমি কি হতে চাই, তার লক্ষ্য এখন থেকেই ঠিক করতে হবে।
উত্তর শাহতলী যোবাইদা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আবুল কালাম আজাদের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. কামাল হোসেন।
অনুষ্ঠানে অন্য অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শাহতলী কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাও. মোহাম্মদ বিলাল হোসাইন, জিলানী চিশতী কলেজের অধ্যক্ষ মো. হারুন-অর রশিদ, উত্তর শাহতলী জোবাইদা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নয়ন চন্দ্র দাস, মধ্য শাহতলী কাদেরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোসা. তহমিনা আক্তার, সদ্যঅবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মো. রফিকুল ইসলাম তালুকদার, ফাহিমা জাহান, উত্তর শাহতলী যোবাইদা বালক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. দিদার হোসেন মিজি।
অনুষ্ঠানে ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে শুভেচ্ছা স্মারক ও ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে স্কুল ড্রেস বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ। এ সময় বিদ্যালয়ের সদ্য অবসরগ্রহণকারী শিক্ষক মো. রফিকুল ইসলাম তালুকদারকে বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা ও উপহার তুলে দেয়া হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. সাহাদাৎ হোসেন। পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন শিক্ষক মাও. শহিদুল ইসলাম।

১৩ জানুয়ারি, ২০২২।