প্রেমের টানে আমেরিকা থেকে ছুটে এসে চাঁদপুরের শাহাদাতকে বিয়ে

স্টাফ রিপোর্টার
প্রেমের টানে সুদূর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ছেড়ে এক আমেরিকান মেয়ে চাঁদপুরের আশিকাটি ইউনিয়নের এক যুবকের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক কৌতুহল ও আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া তাদের এক নজর দেখার জন্য বিয়ে বাড়িতে অনেকে ভিড় জমিয়েছেন।
গত শনিবার (৫ জুন) দুপুরে চাঁদপুর সদর উপজেলার আশিকাটি ইউনিয়নের রালদিয়া গ্রামের প্রধানিয়া বাড়িতে আমেরিকান মেয়ে জিইনাবচনের সাথে মো. কামাল উদ্দিন প্রধানিয়ার ছেলে শাহাদাত হোসেনের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।
এ দিন দুপুরে আশিকাটির রালদিয়া নিজ বাড়িতে আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধু-বান্ধবের উপস্থিতিতে শাহাদাত হোসেন আমেরিকার নাগরিক প্রেমিকা জনস্ জিইনাবচনকে ইসলামী শরীয়া মোতাবেক বিবাহ করেন।
স্বজনরা জানান, শাহাদাতের ছোট ভাই আবু জাফর দুবাই থাকা অবস্থায় মার্কিন তরুণী ফাতেমা মোহাম্মদ মুসার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিলো। পরে তারা বিয়ে করে আমেরিকায় চলে যান। এরই সূত্র ধরে আবু জাফরের স্ত্রীর বান্ধবী জনস জিইনাবসনের সঙ্গে মালয়েশিয়া থাকা অবস্থায় শাহাদাতের প্রেম হয়। পরে তারা বিয়ের পরিকল্পনা করে কয়েকদিন আগে দেশে আসেন। এরপর গ্রামের বাড়িতে এসে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।
এ সময় শাহাদাত হোসেন ও নববধূ জনস্ জিইনাবচন বলেন, আমাদের ভালোবাসা বহু বছরের। আমরা বিবাহবন্ধনে জড়িয়েছি। আমাদের আগামি দিনগুলো যেন সুখের হয় তার জন্য আমাদের দোয়া করবেন।
এ বিষয়ে আশিকাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিল্লাল হোসেন মাস্টার বলেন, বিয়েতে আমি না গেলেও ঘটনাটির সম্পর্কে জেনেছি।

০৭ জুন, ২০২১।