ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্টের হুইল চেয়ার প্রদান

স্টাফ রিপোর্টার
স্বাধীনতার মহান স্থপতি ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্টের পক্ষ থেকে রোগী বহনকারী ও হুইল চেয়ার প্রদান এবং শোকসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত সোমবার সন্ধ্যায় চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আয়োজনে হাসপাতালের হলরুমে শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি।
তিনি তার বক্তব্যে বলেন, সবাই যদি যার-যার দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করেন, তাহলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলা সম্ভব হবে।
চিকিৎসকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা আমার ভাই-বোন। আর আমি একজন চিকিৎসক। আগের তুলনায় সেবার মান অনেক পরিবর্তন হয়েছে। মধ্যবয়সী অনেক চিকিৎসক আছেন, এখনো হাসপাতালে সময়মত আসেন না। সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেন না। আমি নিজে এখন থেকে তা তদারকি করবো। তাই আপনারা যারা এখনো সেবা দানে যারা অনিয়ম করছেন আপনারা ঠিক হয়ে যান। এটা আপনাদের জন্য শেষবারের মতো সতর্ক হিসেবে নিতে পারেন।
চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মাহাবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান।
চাঁদপুর বিএমএ’র সাধারণ সম্পাদক ডা. মাহমুদুন নবী মাসুমের পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ, চাঁদপুর এনএসআই উপ-পরিচালক শাহ মো. আরমান, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত ডা. সৈয়দা বদরুন্নাহার চৌধুরী, জেলা বিএমএ’র সাবেক সভাপতি ডা. এসএম শহীদ উল্ল্যাহ, ডা. সাজেদা পলিন, ডা. সালেহ আহমেদ, আরএমও ডা. সুজাউদ্দৌলা রুবেল, চাঁদপুর বিএমএ’র সভাপতি ডা. নূরুল হুদা, ডা. তাবেন্দাসহ আরো অনেকে।
পরে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন কালেক্টরেট জামে মসজিদের খতিব মাও. মোশাররফ হোসেন।
এর আগে ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্টের পক্ষ থেকে ৪টি রোগী বহনকারী ও ৬টি হুইল চেয়ার প্রদান করা হয়।

১৮ আগস্ট, ২০২২।