খাদেরগাঁওয়ে নৌকাকে হারিয়ে ঘোড়ার জয়

মতলব দক্ষিণ ব্যুরো
মতলব দক্ষিণ উপজেলার খাদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে। বুধবার (২৭ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ইভিএম পদ্ধতিতে এ ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পন্ন করতে বিপুলসংখ্যক আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েন ছিল।
এছাড়া নির্বাচনের কয়েকটি ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ, মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহমিদা হক, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সেটু কুমার বড়ুয়া ও সহকারী পুলিশ সুপার (মতলব সার্কেল) ইয়াসির আরাফাত।
খাদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। এতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত সৈয়দ মনজুর হোসেন রিপন মীর প্রতীক নৌকা মার্কার প্রার্থীকে হারিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী যুবলীগ নেতা মো. ইকবাল হাওলাদার প্রতীক ঘোড়া ৬,০৭০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছে। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সৈয়দ মনজুর হোসেন রিপন (প্রতীক নৌকা) ভোট পেয়েছেন ৪,৮৪১। এছাড়া অপর চেয়ারম্যান প্রার্থী ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. শরিফুল ইসলাম সুজন (হাত পাখা প্রতীক) ১ হাজার ৩শ’ ৬৪ ভোট পেয়েছেন।
সাধারণ সদস্য পদে ১নং ওয়ার্ডে শহীদ মিয়াজী (মোরগ প্রতীক) ৮শ’ ২১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. মানিক মিয়া (তালা প্রতীক) পেয়েছে ৬শ’ ৯৭ ভোট। ২নং ওয়ার্ডে তাপস চন্দ্র সরকার (ফুটবল প্রতীক) ৮শ’ ৬৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অঞ্জন সরকার (তালা প্রতীক) পেয়েছে ৪শ’ ৬৪ ভোট পেয়েছে। ৩নং ওয়ার্ডে জসিম উদ্দিন (ফুটবল প্রতীক) ৪শ’ ৩৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোস্তফা কামাল (টিউবওয়েল প্রতীক) ২শ’ ৯৫ ভোট পেয়েছে। ৪নং ওয়ার্ডে মো. আ. মজিদ (ফুটবল প্রতীক) ৫শ’ ৩৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. মহসিন (মোরগ প্রতীক) ৪শ’ ৯৫ ভোট পেয়েছে। ৫নং ওয়ার্ডে খোকন মিয়া (ফুটবল প্রতীক) ৬শ’ ৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বোরহান উদ্দিন (তালা প্রতীক) ৫শ’ ৩১ ভোট পেয়েছে। ৬নং ওয়ার্ডে মো. কাউসার মিয়া (ফুটবল প্রতীক) ৪শ’ ৫৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আলাউদ্দিন (টিউবওয়েল প্রতীক) ৩শ’ ৬১ ভোট পেয়েছে। ৭নং ওয়ার্ডে মোস্তফা খন্দকার (মোরগ প্রতীক) ৫শ’ ২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রফিকুল ইসলাম (তালা প্রতীক) ৫শ’ ১ ভোট পেয়েছে। ৮নং ওয়ার্ডে আ. মতিন (তালা প্রতীক) ১ হাজার ৩৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সেলিম মিয়া (মোরগ প্রতীক) ৮শ’ ৩৪ ভোট পেয়েছে। ৯নং ওয়ার্ডে মো. শামীম মিয়া (তালা প্রতীক) ৩শ’ ৩০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হাবিব উল্লাহ (মোরগ প্রতীক) পেয়েছে ২শ’ ৩৭ ভোট পেয়েছে।
এছাড়া উপাদী উত্তর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচনী ইউসুফ হাজরা (মোরগ প্রতীক) ৫শ’ ৫৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী তোফায়েল মিয়া (টিউবওয়েল প্রতীক) ৩শ’ ৫৯ ভোট পেয়েছেন।
সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে জোহরা বেগম (বই প্রতীক) ২ হাজার ৫শ’ ৩১ পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জোস্না বেগম (কলম প্রতীক) ১ হাজার ২শ’ ৭৬ ভোট পেয়েছে। সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে রোকেয়া বেগম (বই প্রতীক) ২ হাজার ১শ’ ৫২ পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রানু বেগম (মাইক প্রতীক) ১ হাজার ৫শ’ ৯০ ভোট পেয়েছে। সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে মিশু বেগম (মাইক প্রতীক) ২ হাজার ৯শ’ ৩১ পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শিরিনা বেগম (কলম প্রতীক) ১ হাজার ৭শ’ ৫৪ ভোট পেয়েছে।

২৮ জুলাই, ২০২২।