রাজরাজেশ্বরে আশ্রয়ন প্রকল্পের ২ টন মালামাল চেয়ারম্যানের নির্দেশে জব্দ

স্টাফ রিপোর্টার
চাঁদপুর সদর উপজেলার রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নে শিলারচর আশ্রয়ন প্রকল্পের সরকারি প্রায় ২ টন মালামাল চেয়ারম্যান হাজি মো. হযরত আলীর নির্দেশে জব্দ করেছে গ্রাম পুলিশ। সোমবার (৮ আগস্ট) বিকেলে ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ছোবহান প্রধানিয়ার বাড়ি থেকে মালামালগুলো জব্দ করা হয়। মালামালগুলো ক্রয় করে করেন শরীয়তপুর জেলার ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী আক্তার মাঝি। মালামালের মধ্যে রয়েছে শিলারচর আশ্রয়ন প্রকল্পের লোহার দরজা, জানালা ও এ্যাঙ্গেলসহ রড।
গ্রাম পুলিশ সলেমান প্রধানিয়া, হযরত আলী ও রহমত আলী জানায়, চেয়ারম্যান হযরত আলী স্যারের নির্দেশে আমরা ছোবহান প্রধানিয়ার বাড়িতে গিয়ে মালামাল দেখতে পাই। পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত মালামাল আমাদের হেফাজতে রয়েছে।
ছোবহান প্রধানিয়ার স্ত্রী রহিমা বেগম জানায়, আমাদের বাড়ির পাশে খালি জায়গায় আক্তার মাঝি বিভিন্ন স্থান থেকে ভাঙ্গারি মাল কিনে এনে রাখতো। সরকারি মালামাল চুরি করে বিক্রির জন্য রাখছে কিনা বলতে পারবো না।
ভাঙ্গারী ব্যাবসায়ী আক্তার মাঝি জানায়, আমি শিলারচর আশ্রয়ন প্রকল্পের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ৩৫ থেকে ৩৭ টাকা করে কেজিতে মালামাল ক্রয় করেছি। মালামালগুলো ক্রয় করে ছোবহান প্রধানিয়ার বাড়িতে স্তূপ করে রাখি।
৫নং ওয়ার্ড মেম্বার আবু বকর পাটওয়ারী জানান, আমি ঘটনাস্থলে এসে সবকিছু পর্যবেক্ষণ করে বিষয়টি চেয়ারম্যান সাহেবকে জানিয়েছি।
রাজরাজেশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান হাজি মো. হযরত আলী বেপারী জানান, সরকারি মালামাল বিক্রির উদ্দেশে স্তূপ করা হয়েছে শুনতে পেয়ে ঘটনাস্থলে গ্রাম পুলিশকে পাঠিয়ে মালামালগুলো জব্দ করা হয়েছে। আমি সাথে সাথে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভাইস চেয়ারম্যানসহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়েছি। তাদের পরবর্তী নির্দেশ মোতাবেক ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।

০৯ আগস্ট, ২০২২।