লক্ষ্মীপুরে যুবদলের কমিটি নিয়ে সংঘর্ষে আহত ২০

স্টাফ রিপোর্টার
চাঁদপুরে যুবদলের বিতর্ক যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না। আর্থিক লেনদেন আর বিতর্কিত কর্মকাণ্ডকে কেন্দ্র করে চাঁদপুর সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। খবর পেয়ে চাঁদপুর মডেল থানা ও পুরাণবাজার ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। শুক্রবার (২৮ এপ্রিল) বিকেলে অর্থের বিনিময়ে ইউনিয়ন যুবদলের কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে বহরিয়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে।
সংঘর্ষে আহতরা হলেন- লোকমান গাজী, মুকসুদ মুজি, হাবিব খান, সোবাহান বেপারী, সাদা সুমন খানসহ আরো বেশ কয়েকজন।
ঘটনার পর ইউনিয়ন যুবদলের শত শত বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মী সদর উপজেলা যুবদলের বিতর্কিত কর্মকান্ডের প্রতিবাদ, ঘোষিত ইউনিয়ন যুবদলের কমিটি বাতিল এবং ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি, সেক্রেটারি ও সাংগঠনিক সম্পাদকের বহিষ্কারের দাবিতে বিক্ষোভ করেন।
এ বিষয়ে ইউনিয়ন যুবদলের সদস্য সচিব ও নব-ঘোষিত সেক্রেটারি নূর মোহাম্মাদ বেপারী জানান, আজ বিকেলে আমাদের বহুল প্রতিক্ষিত ইউনিয়ন যুবদলের সম্মেলন ছিলো। সম্মেলনটি ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি নুরু ভূঁইয়ার বাড়িতে হয়। আমাদের সদর উপজেলা বিএনপি এবং যুবদলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে ইউনিয়ন যুবদলের কমিটি ঘোষণা করা হয়। এতে আমাকে সাধারণ সম্পাদক এবং নুরু ইসলাম পাটোয়ারিকে সভাপতি ঘোষণা করা হয়। হঠাৎ করে তারা অদৃশ্য কারণে ৫ মিনিটের সময় চেয়ে অনুষ্ঠানস্থল থেকে অন্যত্র যান। ফিরে এসে তারা দ্বিতীয় দফায় কমিটি ঘোষণা করেন। এ ঘোষণার পর উপস্থিত নেতাকর্মীরা ‘টাকার বিনিময়ে করা এই কমিটি মানি না’- বলে প্রতিবাদ জানায়। এক পর্যায়ে সেখানে হট্টগোল বেঁধে যায়।
নূর মোহাম্মাদ বেপারী আরো জানান, ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি নুরু ভূঁইয়া নিজে আমাদের যুবদলের নেতাকর্মীদের পিটিয়ে আহত করেছে। আমাদের ১০/১৫ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছে। তিনি ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি হয়ে কি করে যুবদলের নেতাকর্মীদের গায়ে হাত তোলেন? তারা টাকার বিনিময়ে ৫ মিনিটের মধ্যে কমিটি পাল্টে দিয়েছে। আমরা এই কমিটি বাতিল এবং ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি, সেক্রেটারি ও সাংগঠনিক সম্পাদকের বহিষ্কার দাবি করছি।
এদিকে গত কয়েকদিন ধরে চাঁদপুর জেলা যুবদলের কমিটি বাতিল এবং সদর উপজেলা যুবদলের বিতর্কিত কমিটি বিলুপ্তের দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠেছে যুবদলের তৃণমূল নেতাকর্মীরা। তাদের দাবি, বর্তমান জেলা যুবদল এবং সদর থানা যুবদল অর্থ লেনদেনের মাধ্যমে বিভিন্ন ইউনিয়নে কমিটি করছে। তারা আন্দোলন সংগ্রামে রাজপথে না থেকে টাকা ইনকাম আর ফেসবুকে আন্দোলন করে যাচ্ছে। চাঁদপুরের যুবদলের হারানো ঐতিহ্যকে ফিরিয়ে আনতে অবিলম্বে জেলা যুবদল এবং সদর উপজেলা যুবদলের কমিটি বাতিল করে সাবেক ছাত্রনেতাদের সমন্বয়ে শক্তিশালী একটি যুবদলের কমিটি ঘোষণা করা হোক। যা আগামি দিনে বিএনপির আন্দোলন সংগ্রামে বড় ভূমিকা রাখবে।

২৯ এপ্রিল, ২০২৩।