সৌদিআরবে দুর্ঘটনায় নিহত বাবাকে শেষবারের মতো দেখতে স্বজনদের আকুতি

হাজীগঞ্জের এক রেমিটেন্স যোদ্ধার মৃত্যু

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্
সৌদিআরবে সড়ক দুর্ঘটনায় মো. আরিফুল ইসলাম আরিফ হাজি (৫০) নামে এক বাংলাদেশী নিহত হয়েছেন। গত রোববার সন্ধ্যায় রিয়াদ শহরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তিনি হাজীগঞ্জ উপজেলার হাটিলা পূর্ব ইউনিয়নের পশ্চিম হাটিলা গ্রামের হাজি বাড়ির মৃত মোবারক হোসেনের ছেলে।
নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মো. আরিফুল ইসলাম দীঘদিন রিয়াদ চাকরি করতেন। তিনি সেখানে আরিফ হাজি নামে পরিচিত। রোববার মাগরিবের নামাজ পড়ে বাসায় ফেরার উদ্দেশে তিনি রাস্তা পার হচ্ছিলেন। এসময় একটি দ্রুতগামী গাড়ি তাকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
নিহতের ছেলে আকরাম হাজি মামুন জানান, একমাস আগে তার বাবার ইকামার (কাজের অনুমতিপত্র) শেষ হয়ে যাওয়ায় তিনি সেখানে অবৈধ ছিলেন। এর মধ্যে তিনি ইকামার জন্য কাগজপত্র জমা দিয়েছেন, কিন্তু রোববার মাগরিবের নামাজ পড়ে বাসায় ফেরার পথে তার বাবা সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান।
তিনি বলেন, ইকামার মেয়াদ না থাকায় বাবার মরদেহ দেশে আনা অনেকটা অসম্ভব। সেখানে আত্মীয়-স্বজন রয়েছেন, তারা চেষ্টা করছেন। সম্ভব না হলে সেখানেই বাবাকে দাফন করা হবে। এসময় কান্নাজড়িত কণ্ঠে সরকারের প্রতি আকুতি জানিয়ে তিনি জানান, সরকার যেন তার বাবাকে শেষ দেখার ব্যবস্থা করে দেন।

২৪ জানুয়ারি, ২০২৩।