হাজীগঞ্জে বাবা জাকির ইয়াবাসহ আটক

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্
হাজীগঞ্জে পুলিশের কাছ থেকে হাতকড়াসহ পালানো ২০টি মাদক মামলার পলাতক আসামি মো. জাকির হোসেন (৩৮) ওরফে বাবা জাকিরকে ৩০৭ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার (২২ জুন) দুপুরে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠায়।
এর আগে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে তাকে পৌরসভাধীন বলাখাল বাজার থেকে গ্রেফতার কওে এসআই মো. মিসবাহুল আলম চৌধুরী। মাদক কারবারি মো. জাকির হোসেন বাকিলা ইউনিয়নের খলাপাড়া গ্রামের মৃত লাল মিয়ার ছেলে।
এদিন ইয়াবা জব্দের ঘটনায় জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে আরো একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়। এ নিয়ে তার নামে মামলার সংখ্যা দাঁড়ালো ২১। সে উপজেলার চিহ্নিত মাদক কারবারি।
থানা সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাকিলা বাজারের ফকির বাজার থেকে ইয়াবাসহ একই ইউনিয়নের খলাপাড়া গ্রামের চিডা মিস্ত্রীর ছেলে কবিরকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যে পলাতক আসামি ও মাদক কারবারি জাকিরকে পৌরসভাধীন বলাখাল বাজার থেকে গ্রেফতার করা হয়।
জাকির হোসেন হাজীগঞ্জ থানায় মামলা নং- ২ (০২) ২২, ধারা- ১৪৩/১৪৭/১৮৬/৩৩২/৩৫৩/২২৪/২২৫ পেনাল কোডের এজাহারভূক্ত ১নং আসামি এবং জিআর নং-১৬৫/১৬ এর ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি।
এ বিষয়ে হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ জোবাইর সৈয়দ জানান, জাকির হোসেন একজন চিহ্নিত মাদক কারবারি। তার নামে গ্রেফতারী পরোয়ানা রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের পর বুধবার দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ৪ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) সকালে বাকিলা বাজারের মাদরাসা মাঠে একটি জানাযা থেকে ওয়ারেন্টভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী জাকির হোসেনকে আটক করেন হাজীগঞ্জ থানার এএসআই মো. মোজাম্মেল হোসেন।
ওই সময় স্থানীয়দের অনুরোধে আটক জাকির হোসেনকে জানাজায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেয় পুলিশ। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সে তার সহযোগীদের নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা করে। এরপর হাতকড়াসহ পালিয়ে যায়।

২৩ জুন, ২০২২।