হাজীগঞ্জে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন

স্বাস্থ্যসেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে হবে
………..ডা. মো. শহীদুল ইসলাম শোভন

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্
হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অসংক্রামক ব্যাধী নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির (এনসিডিসি) প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা. মো. শহীদুল ইসলাম শোভন। মঙ্গলবার (২৪ মে) সকালে তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সরেজমিন পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি চিকিৎসক, নার্স, কর্মচারী ও সেবাগ্রহীতাদের সাথে কথা বলেন।
এরপর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় তিনি সংশ্লিষ্টদের উদ্দেশ্যে দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, নানাবিধ প্রতিকূলতা এবং অপ্রতুলতা সত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বাস্থ্যখাতে বাংলাদেশ অনেক দূর এগিয়েছে। যা বিশ্বব্যাপী প্রশংসনীয় সফলতা অর্জন করেছে।
তিনি বলেন, একসময় অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও চিকিৎসা সরঞ্জামাদি তো দূরের কথা, ছিল না প্রয়োজনীয় চিকিৎসক ও ঔষধ। অথচ আজ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অবকাঠামোগত উন্নয়ন, প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সরঞ্জামাদী ও বিনামূল্যে ঔষধ প্রদান, পর্যাপ্ত চিকিৎসক ও নার্স নিয়োগসহ সবধরনের সুযোগ-সুবিধা বিদ্যমান।
তিনি আরো বলেন, সরকার আগামিদিনে রোগিদের বিনামূল্যে ইনসুলিন ও ইনহেলার এবং হাসপাতালে অটোপ্রেসার মেশিন প্রদানসহ আধুনিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণ ও অস্বচ্ছল রোগিদের দামী ঔষধ বিনামূল্যে প্রদানের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। যা ধারাবাহিকভাবে বাস্তবায়িত হবে। ইতোমধ্যেও বেশ কিছু দামী ঔষুধ প্রদান করা হচ্ছে।
চিকিৎসকদের উদ্দেশে ডা. মো. শহীদুল ইসলাম শোভন বলেন, সরকারি চাকরি হয়েছে, আপনি সরকারি ভাব নিয়ে বসে থাকবেন, সেইদিন আর নেই। আপনাকে আন্তরিকতার সাথে সেবা দিতে হবে। রোগি আপনার কাছে আসবে না, আপনাকে রোগির কাছে যেতে হবে এবং স্বাস্থ্যসেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে হবে।
তিনি আরো বলেন, আগামি দিনে থাকছে না এসিআর (বার্ষিক গোপনীয় অনুবেদন)। এর পরিবর্তে আসছে কর্মভিত্তিক নতুন অনলাইন মূল্যায়ন ব্যবস্থা এপিএআর (অ্যানুয়াল পারফরমেন্স অ্যাপ্রাইজাল রিপোর্ট-বার্ষিক কর্মকৃতি মূল্যায়ন প্রতিবেদন)। সুতরাং পদোন্নতি বা পদায়ন পেতে হলে আমাদের দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে হবে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. গোলাম মাওলা নঈমের সভাপতিত্বে এসময় কর্মরত চিকিৎসকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মো. জামাল উদ্দিন, কার্ডিওলজি কনসালটেন্ট ডা. মোহাম্মদ নাজমুল হক, মেডিকেল অফিসার ডা. আবু ইউসুফ মো. যোবায়ের।
মেডিকেল অফিসার ডা. ওমর ফারুকের উপস্থাপনায় মতবিনিময় সভায় নার্সদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নার্সিং সুপারভাইজার পুতুল মজুমদার ও সিনিয়র স্টাফ নার্স ফাতেমা আক্তার। এসময় হাসপাতালের অন্যান্য চিকিৎসক, নাস ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

২৫ মে, ২০২২।