হাজীগঞ্জে ৪ মাস বয়সি শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্
হাজীগঞ্জে শাহরিন নামের চার মাস বয়সি এক শিশুর রহস্যজনক মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। শনিবার (৬ আগস্ট) ভোরে হাজীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের বাড্ডা গ্রামের মিজি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে এদিন সকালে মৃত শিশু শাহরিনের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ। শিশুটি ওই বাড়ির প্রবাসি ফারুক হোসেন মিয়াজির একমাত্র মেয়ে।
জানা গেছে, শনিবার সকালে মায়ের হাতে শিশু খুন এমন খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি জানতে পেরে হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জের নির্দেশনায় এসআই মো. নাজিম উদ্দীন ওই বাড়িতে যান। এসময় তিনি মৃত শিশুর মা ও পরিবারের অন্য সদস্যদের সাথে কথা বলেন এবং শিশুর মরদেহ উদ্ধারপূর্বক সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে থানা হেফাজতে নিয়ে আসেন।
এদিকে শিশু শাহরিনের মৃত্যুর ঘটনায় প্রবাসী বাবা ও পরিবারের সদস্যরা রহস্যজনক বলে মনে করেন। তবে শিশুটির বাবার পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ সংবাদকর্মীদের কাছে আনুষ্ঠানিক কোন বক্তব্য দিতে রাজি হননি। তারা মেডিকেল রিপোর্ট (ময়নাতদন্ত) পুলিশের তদন্তের উপর বিষয়টি ছেড়ে দেন। এদিকে স্থানীয়ভাবে লোকমুখে শুনা যাচ্ছে, শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে, কেউ বা আবার বলছেন, ব্রেনস্টোক বা হার্ট এ্যাটাকে মৃত্যু হয়েছে?
এ বিষয়ে শিশুটির মামার বাড়ির লোকজন জানান, অন্যদিনের মতো শিশুটিকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিল তার মা মানসুরা বেগম। রাতে কয়েকবার দুধও খায় সে। কিন্তু রাত ৩টার পর শিশুটির কোন সাড়া-শব্দ না পেয়ে, তার মা ডাক-চিৎকার করে কান্নাকাটি শুরু করেন। এসময় তার কান্নাকাটি শুনে পরিবারের অন্য সদস্যরা শিশুটির মায়ের ঘরে আসেন। এরপর শিশুটি মারা গেছে বলে সবাই বুঝতে পারেন।
হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ জোবাইর সৈয়দ বলেন, মৃত শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্টে এলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হবে বলে তিনি জানান।

০৭ আগস্ট, ২০২২।