আদালতের আদেশ অমান্য করায় রিসিভার নিয়োগ

চাঁদপুর শহরের রহমতপুর কলোনীতে

স্টাফ রিপোর্টার
চাঁদপুর শহরের রহমতপুর আবাসিক কলোনীতে নালিশি সম্পত্তিতে ফৌজদারি কার্যবিধি আইনের ১৪৫ ধারায় প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে প্রসেডিং এবং ১৪৬ ধারা মতে নালিশী ভূমিতে চাঁদপুর সদর মডেল থানাকে রিসিভার নিয়োগের প্রার্থনা করে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বাদী হয়ে একটি দরখাস্ত মামলা দায়ের করেন মো. নান্নু আখন (মামলা নং-১৬১/২০১৯ইং, স্মারক নং-৪৭৯, তারিখ-২৮/০২/২০১৯ইং)। আদালতের নির্দেশে তফশীলের নালিশী ভূমিতে চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জকে রিসিভার নিয়োগ করেন। এই প্রেক্ষিতে মডেল থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. সিরাজুল হক চৌধুরী গতকাল সোমবার সকালে ঘটনাস্থলে এসে একটি সাইনবোর্ড সাঁটিয়ে দেন।
মামলায় উল্লেখ করা হয়, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি তফছিল বর্ণিত সম্পত্তির বিষয়ে আদালতে মামলা দায়ের করলে কাগজপত্র পর্যালোচনা করে নালিশি ভূমিতে স্থিতাবস্থার আদেশসহ শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জকে আদেশ প্রদান করেন এবং প্রতিপক্ষের প্রতি কারণ দর্শানোর আদেশ দেন।
পরে আদালতের আদেশে থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. সিরজুল হক চৌধুরী উভয় পক্ষকে নোটিশ প্রদান করে এবং নালিশি ভূমিতে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য বলেন। কিন্তু প্রতিপক্ষ মিন্টু ঢালী আদালতের আদেশ অমান্য করে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি সকাল ৯টায় লোকজন নিয়া নালিশি ভূমির আকার পরিবর্তনের কাজ শুরু করেন।
তফছিল নালিশি সম্পত্তির বিবরণ- চাঁদপুর সদর পৌরসভার জেএল ৯১নং হালে ৯৩নং খতিয়ান সিএস ১০০৭, এসএ ১২৬৩, খারিজী-৫৯৮৫, জোত নং ৭৫৮৫, দাগ নং-সিএস ৬৭৯, এসএ ৩৬৬৭ দাগে মৌঃ .০১৭০ একর এসএ ৩৬৬৮ দাগে বাড়ি মৌঃ .০১৬০ একর একুনে .০৩৩৩০ একর ভূমি, যার বিএস ১৪৩৪৯ ও ১৪৩৫০ দাগভূক্ত। যা চাঁদপুর হাউজিং স্টেটের ৯নং নম্বর প্লটের উত্তর অংশে হোল্ডিং নং-১০৫৬-০১। চৌহদ্দিঃ- উত্তরে- পৌরসভার রাস্তা, দক্ষিণে-আবুল ঢালী, পূর্বে-দেলোয়ার হোসেন ও পশ্চিমে-ওয়াদুদ ভূঁইয়া।