চাঁদপুর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থী আক্তার মাঝি

এস এম সোহেল
চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আক্তার হোসেন মাঝিকে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় জেলা বিএনপি কার্যালয়ে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক আনুষ্ঠানিকভাবে শহর বিএনপির সভাপতি আক্তার হোসেন মাঝিকে ধানের শীষের প্রার্থী ঘোষণা করেন।
এসময় শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক বলেন, আমরা মাইক ব্যবহার করতে চাইলেও ব্যবহার করতে দেয়া হয় না, এটা সরকার মনে হয় আইন পাস করেছে। আমাদের নেতাকর্মীরা রাস্তায় দাঁড়াতে পারে না।
তিনি আরো বলেন, চাঁদপুর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আমাদের ৪ জন নেতা মনোনয়ন চেয়েছিলেন। আমরা দল থেকে চিন্তা-ভাবনা করে জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক আক্তার হোসেন মাঝিকে চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র পদে ধানের শীষ প্রতিকে নির্বাচন করার জন্য মনোনীত করেছি। অন্যান্য প্রার্থী আলহাজ মোশারফ হোসাইন, শাহজালাল মিশন ও কাজী মোহাম্মদ ইব্রাহীম জুয়েল তাকে সমর্থন দিয়েছে। আমরা এ নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করবো। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার স্থায়ী মুক্তি ও তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে দেশের মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করবো।
জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক মুনির চৌধুরীর পরিচালনায় নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক অ্যাড. সেলিম উল্যাহ সেলিম, মাহাবুব আনোয়ার বাবলু, দেওয়ান সফিকুজ্জামান, কাজী গোলাম মোস্তফা, খলিল গাজী, চাঁদপুর জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন খান বাবুল, জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক ফেরদৌস আলম বাবু, সেলিমুছ সালাম, অ্যাড. হারুনুর রশীদ, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. জহির উদ্দিন বাবর, সদর উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. সামছুল ইসলাম মন্টু, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. জাহাঙ্গীর হোসেন খান, শহর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির বেপারী, দীন মোহাম্মদ জিল্লু, জেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. আফজাল হোসেন, জেলা যুবদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মানিকুর রহমান মানিক, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন খান আকাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ বাহার, জেলা কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, জেলা ছাত্রদলের ইমাম হোসেন গাজী, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেনসহ বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
এর আগে প্রার্থিতা চূড়ান্ত করতে গত ১১ সেপ্টেম্বর গভীর রাত পর্যন্ত চাঁদপুর জেলা ও পৌর বিএনপির নেতৃত্ব পর্যায়ের এক রুদ্ধধার বৈঠক জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের বাসভবনে অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হাজি মোশারফ হোসাইন, চাঁদপুর সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাহাজালাল মিশন ও জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাজী মোহাম্মদ ইব্রাহীম জুয়েল প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেন।
প্রায় দেড়যুগ পৌরসভা মেয়র থেকে বঞ্চিত দলটি একক প্রার্থী নির্ধারণে বেশ ঘাম ঝড়াতে হয়েছে। শক্তিশালী সরকার দলীয় প্রার্থীর বিপরীতে একক প্রার্থী নির্বাচনে চুল-চেড়া বিশ্লেষণে ছিলো বিএনপির নীতি-নির্ধারকরা। কারণ, সদ্যপ্রয়াত বিএনপি মনোনীত একক প্রার্থী ব্যাপক জনপ্রিয় নেতা সফিকুর রহমান ভূঁইয়ার স্থলে জনপ্রিয়তা এবং সাংগঠনিক দক্ষতাসম্পন্ন প্রার্থীকে মনোনয়ন দিতে আগ্রহী ছিলেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক।
এ নির্বাচনে একক প্রার্থী নির্ধারণে চাঁদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের সভাপতিত্বে গত ১০ সেপ্টেম্বর বিকেলে শীর্ষ নেতাদের নিয়ে প্রার্থীদের সাথে রুদ্ধদ্বার বৈঠক হলেও সেটি শেষ পর্যন্ত মুলতবী করা হয়। শুক্রবার রাতে পুনরায় চাঁদপুর জেলা ও পৌর বিএনপি নেতৃবৃন্দ প্রার্থীদের সাথে বৈঠকে মিলিত হয়ে আক্তার হোসেন মাঝিকে মনোনীত করেন। এখন পরবর্তী ধাপ হিসেবে জেলা বিএনপি স্বাক্ষরিত পত্রে এ প্রার্থীর নাম কেন্দ্রে পাঠানো হবে এবং কেন্দ্র তাকে চাঁদপুর পৌর নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীক বরাদ্দ দেবে।
উল্লেখ্য, আগামি ১০ অক্টোবর চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হবে। স্থগিত হওয়া চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনের পুনঃতফসিলে ১৫ সেপ্টেম্বর জেলা রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। ১৭ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই। ২৪ সেপ্টেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন এবং ১০ অক্টোবর শনিবার ভোটগ্রহণ। ওইদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।
এর আগে গত ২৯ মার্চ এই নির্বাচন হওয়ার কথা ছিলো। বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী সফিকুর রহমান ভূঁইয়ার মৃত্যুতে ১৬ মার্চ গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে অনির্দিষ্টকালের জন্য নির্বাচন স্থগিত করে কমিশন।
এদিকে চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, চাঁদপুর পৌরসভার স্থগিত নির্বাচন সম্পন্নের লক্ষ্যে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র দাখিলের সুযোগ রাখা হয়েছে। এছাড়া ইতোপূর্বে মেয়র পদে যারা মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন তাদের আর নতুন করে দাখিলের প্রয়োজন হবে না। একই সাথে সংরক্ষিত কাউন্সিলর, সাধারণ আসনের কাউন্সিলর পদে নতুন করে মনোনয়নপত্র দাখিলের সুযোগ থাকবে না। ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হবে।
এই নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কা নিয়ে নির্বাচনে লড়বেন অ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েল এবং হাতপাখা মার্কার প্রার্থী ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের চাঁদপুর জেলা সংগঠনের নেতা মামুনুর রশিদ বেলাল।
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০।