ফরিদগঞ্জে ময়লার ভাগাড়ে নবজাতকের লাশ

নারায়ন রবিদাস
ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার ময়লার ভাগাড় থেকে এক নবজাতকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (৯ জুন) বিকালে শহরের রূপসা রাস্তার মোড় এলাকায় এই লাশ পড়ে থাকতে দেখে ‘৯৯৯’ এ ফোন দেয় লোকজন। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর পাঠায়।
স্থানীয় লোকজন জানায়, পৌর এলাকার মূল সড়কের পাশে কৃষি বিভাগের জমির উপর দীর্ঘদিন ধরেই পৌর এলাকার ময়লা আবর্জনা ফেলা হয়। একই সাথে আশপাশের হাসপাতাল, ডায়গনস্টিক সেন্টারসহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেরও আবর্জনা এখানে ফেলা হয়। বুধবার বিকালে ওই ময়লার ভাগাড়ে জাহাঙ্গীর নামে এক ব্যক্তি নবজাতকের লাশ পড়ে থাকতে দেখে ৯৯৯-এ ফোন দেন। পরে ফরিদগঞ্জ থানার এসআই আ. কুদ্দুছ লাশটি উদ্ধার করেন।
স্থানীয়রা ধারণা করছেন, পাশ^বর্তী কোনো হাসপাতাল কিংবা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে গর্ভপাত ঘটিয়ে কোনো নারী তার নিজের অপকর্ম ঢাকতে হয়তোবা রাতের আঁধারে নবজাতকটিকে এখানে ফেলে গেছে। তারা জানান, বছর দুয়েক আগেও ঐ স্থানের কিছু দূরে ফরিদগঞ্জ দক্ষিণ বালিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন স্থানে অনুরূপ এক নবজাতকের লাশ পাওয়া যায়। আশপাশে হাসপাতাল ও ডায়গনস্টিক সেন্টার থাকায় এঘটনা অহরহ ঘটছে।
ফরিদগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লক্সের আরএমও ডা. কামরুল হাসান জানান, এটি সম্পূর্ণ নীতি বিবর্জিত কাজ। বিষয়টি খুঁজে বের করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন।
এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহিদ হোসেন জানান, ৯৯৯ ফোন দিয়ে স্থানীয় লোকজন জানালে নবজাতকের লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর পাঠানো হয়েছে।

১০ জুন, ২০২১।