মতলব দক্ষিণে শিশু ধর্ষণে রিক্সাচালক আটক

মতলব দক্ষিণ ব্যুরো
মতলব দক্ষিণ উপজেলায় দক্ষিণ ডিঙ্গাভাঙা গ্রামে ষষ্ঠ শ্রেণি পড়ুয়া এক ছাত্রী (১২) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় মতলব দক্ষিণ থানায় গত শুক্রবার মামলা করেছেন মেয়ের মা। মামলার আসামি আনোয়ার হোসেনকে আটক করা হয়েছে। গত ৫ সেপ্টেম্বর ছাত্রীটি ধর্ষণের শিকার হয়। অভিযুক্ত আনোয়ার হোসেন এলাকায় রিকশা চালায়।
জানা গেছে, গত ৫ সেপ্টেম্বর দুপুর সাড়ে ১২টায় ছাত্রীটি তার বাড়ির পাশে একটি গাছ থেকে পেয়ারা পারছিল। সে সময় ছাত্রীকে কৌশলে ডেকে পাশের একটি সদ্যনির্মিত দালানের পেছনে নিয়ে যায় আনোয়ার। সেখানকার একটি অব্যবহৃত খোলা টয়লেট নিয়ে মুখ চেপে ছাত্রীটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে আনোয়ার। এ সময় ধর্ষিতার চিৎকারে আশপাশের লোকজন সেখানে এগিয়ে এলে আনোয়ার দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। সেখান থেকে উদ্ধার করে স্থানীয় লোকজন ছাত্রীটিকে তার বাড়িতে নিয়ে আসেন। ছাত্রীটির মা তাকে ওই দিন চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করান।
পারিবারিক সম্মান ও মেয়েটির ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে প্রথমে কয়েক দিন ঘটনাটি চেপে স্থানীয়ভাবে মীমাংসার চেষ্টা করেন পরিবারের লোকরো। এতে কাজ না হওয়ায় গত শুক্রবার দুপুর রিকশাচালক আনোয়ার হোসনকে আসামি করে মতলব দক্ষিণ থানায় মামলা করেন ওই ছাত্রীর মা। মুঠোফোন ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে শুক্রবার রাত নয়টায় পুরান ঢাকার হোসনে দালান এলাকার একটি বাড়ি থেকে আনোয়ারকে আটক করে মতলব দক্ষিণ থানার পুলিশ।
মতলব দক্ষিণ থানার ওসি স্বপন কুমার আইচ বলেন, ডাক্তারী পরীক্ষা শেষে মেয়েটিকে পরিবারের জিম্মায় রাখা হয়েছে। মামলার আটক আসামি আনোয়ারকে গত শনিবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়।
১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০।