রেড জোনে চাঁদপুরের ৬ পৌরসভা ও ১ ইউনিয়ন

স্টাফ রিপোর্টার
কঠোর লকডাউনের আওতাভুক্তির জন্য চাঁদপুর জেলার ৬ পৌরসভা ও ১টি ইউনিয়নের নাম রেড জোনের প্রস্তাব করা হয়েছে। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে এই প্রস্তাবনা এরইমধ্যে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। প্রস্তাবটি এখন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় তথা সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছে।
চাঁদপুরের সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে গত ১৮ জুন এসব তথ্য জানা গেছে। সূত্র আরো জানায়, মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন ও নির্দেশনার আলোকে প্রস্তাবিত ৬টি পৌরসভা ও ১টি ইউনিয়নে একযোগে অথবা পর্যায়ক্রমে রেড জোন তথা কঠোর লকডাউন কার্যকর হতে পারে। রেড জোনের জন্য প্রস্তাবিত পৌরসভাগুলোর মধ্যে রয়েছে চাঁদপুর, হাজীগঞ্জ, মতলব, ফরিদগঞ্জ, শাহরাস্তি ও কচুয়া পৌরসভা। প্রস্তাবিত একমাত্র ইউনিয়নটি হলো হাইমচর উপজেলার আলগী দক্ষিণ ইউনিয়ন।
এ বিষয়ে চাঁদপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. সাখাওয়াত উল্লাহ জানান, চাঁদপুর জেলার মধ্যে চাঁদপুর ও হাজীগঞ্জ শহরে করোনার সংক্রমণ এখন সর্বাধিক। এছাড়া মতলব উত্তর বাদে অন্যান্য উপজেলা সদরে করোনার সংক্রমণ রেড জোনে পড়ার মতো অবস্থানে যেয়ে পৌঁচেছে।
তিনি আরো বলেন, আমরা জোন ভাগ করতে যেয়ে দেখলাম, শহরে ওয়ার্ডভিত্তিক জোন করলে একটা বড় সমস্যা হচ্ছে একাধিক ওয়ার্ডে যাতায়াতের একটি/একাধিক রাস্তা পড়ে যাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে একটি ওয়ার্ডের জন্য রাস্তা বন্ধ করলে অন্য ওয়ার্ডের যাতায়াতও বন্ধ হয়ে যাবে। তাছাড়া শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলছে। তাই আমরা পুরো পৌর এলাকাকে রেড জোন ও লকডাউনের আওতায় আনার প্রস্তাব করেছি। আমরা আমাদের প্রস্তাবনা ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করেছি। এখন মন্ত্রণালয় থেকে যেভাবে সিদ্ধান্ত আসবে সেভাবেই আমরা তা বাস্তবায়ন করবো।

১৯ জুন, ২০২০।