হাজীগঞ্জে পুকুরের পানিতে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্
হাজীগঞ্জে মাত্র ৪৮ ঘণ্টার ব্যবধানে মো. আব্দুল্লাহ (২) ও সায়মা আক্তার (২) এবং সাকিবুল হাসান (৭) নামের তিন শিশু পুকুরের পানিতে ডুবে মারা গেছে। গত শুক্রবার বিকালে হাজীগঞ্জ পৌরসভাধীন কংগাইশ গ্রামে মো. আব্দুল্লাহ এবং একই দিন সকালে উপজেলার হাজীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের বাড্ডা গ্রামে পুকুরের পানিতে ডুবে সায়মা আক্তার মারা যায়।
এর আগে বুধবার বিকালে কালচোঁ দক্ষিণ ইউনিয়নের রামপুর নওহাটা গ্রামে পুকুরের পানিতে ডুবে সাকিবুল হাসান মারা যায়। নিহত শিশু আব্দুল্লাহ্ কংগাইশ গ্রামের মো. জাকির হোসেনের ছেলে। নিহত সায়মা আক্তার বাড্ডা গ্রামের প্রবাসী মনির হোসেনের মেয়ে ও নিহত সাকিবুল হাসান নওহাটা গ্রামের আবুল কাশেমের মেয়ে।
নিহত শিশুদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মো. আব্দুল্লাহ, সায়মা আক্তার ও সাকিবুল হাসান নিজ নিজ বাড়িতে খেলতে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে তিন শিশুকেই বাড়ির নিজ নিজ পুকুরের পানিতে ভাসতে দেখে, তাদের পরিবারের লোকজন উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরিক্ষা শেষে শিশুদের মৃত ঘোষণা করে।
এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আহমেদ তানভির হাসান বলেন, শিশু মো. আব্দুল্লাহ, সায়মা আক্তার ও সাকিবুল হাসানকে হাসপাতালে আমরা মৃত অবস্থায় পেয়েছি।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এস.এম সোয়েব আহমেদ চিশতী বলেন, মাত্র দুই দিনের ব্যবধানে পুকুরের পানিতে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু দুঃখজনক। পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যু প্রতিরোধে পারিবারিক সচেতনতা জরুরি বলে তিনি উল্লেখ করেন।
৮ নভেম্বর, ২০২০।