হাজীগঞ্জে বিএম কলিম উল্যাহ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্
হাজীগঞ্জে বিএম কলিম উল্যাহ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সুরক্ষা সামগ্রী (মাস্ক, গ্লাভস, ফেস শিল্ড ও পিপিই) উপহার দেয়া হয়েছে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবেলায় পৌরসভা, হাসপাতাল (চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মী), পুলিশ, সাংবাদিক এবং করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গে মৃতদের দাফনে স্বেচ্ছাসেবক কমিটির সদস্যদের মাঝে এই সুরক্ষা সামগ্রী উপহার দেয়া হয়।
ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ও নিজস্ব অর্থায়নে এ দিন ৪৯০টি অরজিনাল কেএন-৯৫ মাস্ক, ১ হাজার জোড়া (২ হাজার) হ্যান্ড গ্লাভস, ১২০টি ফেস শিল্ড ও ২০টি পিপিই বিতরণ করা হয়। এর মধ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৫০টি মাস্ক, ১ হাজার গ্লাভস ও ৫০টি ফেস শিল্ড, হাজীগঞ্জ থানায় ১৫০টি মাস্ক, ৫০০ গ্লাভস, ১০টি পিপিই ও ৫০টি ফেস শিল্ড এবং হাজীগঞ্জ পৌরসভায় ১৫০টি মাস্ক দেয়া হয়।
এছাড়া হাজীগঞ্জ প্রেসক্লাবের মাধ্যমে মাঠপর্যায়ে কর্মরত সংবাদকর্মীদের মাঝে ২০টি মাস্ক ও ২০টি ফেস শিল্ড এবং করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গে মৃতদের দাফনে স্বেচ্ছাসেবক কমিটির সদস্যদের মাঝে ৫০০টি গ্লাভস, ২০টি মাস্ক ও ১০টি পিপিই উপহার দেয়া হয়। ফাউন্ডেশনের পক্ষে এ দিন সকালে পৌর মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপনের হাতে এই সুরক্ষা সামগ্রী তুলে দেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের সাবেক কমান্ডার বিএম মহসিন নয়ন।
এরপর চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের পক্ষে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এসএম সোয়েব আহমেদ চিশতী, পুলিশ সদস্যদের পক্ষে থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলমগীর হোসেন রনি, করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গে মৃতদের দাফনে স্বেচ্ছাসেবক কমিটির সদস্য শরিফুল ইসলাম ও সুমন মোল্লা এই উপহার (সুরক্ষা সামগ্রী) গ্রহণ করেন।
সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন ফাউন্ডেশনের সদস্যবৃন্দ। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আহমেদ তানভির হাসান, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ আবদুর রশিদসহ অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, বিএম কলিম উল্যাহ একজন ভাষা সৈনিক ও মুক্তিযোদ্ধা। তিনি একজন সংগঠক ও শিক্ষাবিদ। উপজেলায় হাজীগঞ্জ মডেল সরকারি কলেজ, হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ, রান্ধুনীমূড়া উচ্চ বিদ্যালয়, হাজীগঞ্জ জামিয়া আহমাদীয়া কাওমী মাদরাসাসহ বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সৃষ্টিতে তাঁর প্রত্যক্ষ অবদান রয়েছে। তাঁর পরিবারের সদস্যদের উদ্যোগে ও অর্থায়নে বিএম কলিম উল্যাহ ফাউন্ডেশন গঠন করা হয়।
ফাউন্ডেশনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হচ্ছে, উপজেলায় বসবাসরত অসহায়, দুঃস্থ ও গরিবদের স্বাস্থ্য, শিক্ষা এবং আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন এবং যে কোন মহামারি ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় কর্মরতদের সহযোগিতা করা। তাই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবেলায় পৌরসভা, হাসপাতাল, পুলিশ, সাংবাদিক এবং করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গে মৃতদের দাফনে স্বেচ্ছাসেবক কমিটির সদস্যদের মাঝে এই সুরক্ষা সামগ্রী উপহার দেয়া হয়।

০৯ জুলাই, ২০২০।