ফরিদগঞ্জে যুবক হত্যার মূল হোতা আটক

এস এম সোহেল
ফরিদগঞ্জের ফরিদ উদ্দিন ভূঁইয়া হত্যার মূল হোতাকে আটক করা হয়েছে। গত শুক্রবার গভীর রাতে উপজেলার রুপসা দক্ষিণ ইউনিয়নের পশ্চিম কাওনিয়া গ্রামের নিজের ঘর থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের ভগ্নিপতি দুলাল চৌধুরী ফরিদগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।
একাধিক সূত্রে জানা যায়, ফরিদ উদ্দিন ভূঁইয়ার লাশ তার ঘর থেকে উদ্ধার করা হয়। সেই ঘটনায় তার ভগ্নিপতি দুলাল চৌধুরী ফরিদগঞ্জ থানায় অজ্ঞতদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। সেই মামলার আলোকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায় ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ-ফরিদগঞ্জ সার্কেল) মো. সোহেল মাহমুদের নেতৃত্বে ঢাকায় তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে ব্যাপক অভিযান পরিচালনা করে। এসময় রহমান, শান্তা, আলাউদ্দিন ও তার ছেলেকে অটক করেছে বলে একাধিক সূত্রে জানা যায়। আটকদের জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার ঘটনা নিশ্চিত হয়েছে বলেও সূত্র জানায়।
সূত্রে আরো জানা যায়, কিছুদিন আগে ফরিদ উদ্দিন ভূঁইয়ার ১৫শ’ টাকা চুরি হয়েছিলো। সেই চুরির ঘটনায় রহমানকে সন্দেহ করে ফরিদ উদ্দিন। তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডও হয়। সেই সূত্রে এ হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
উল্লেখ্য, গত শুক্রবার ফরিদগঞ্জে নিজের ঘর থেকে ফরিদ উদ্দিন ভূঁইয়া নামে এক যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায়, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ-ফরিদগঞ্জ সার্কেল) মো. সোহেল মাহমুদ ও ফরিদগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ শহীদ হোসেন। নিহত ফরিদ ওই গ্রামের ভূঁইয়া বাড়ির মৃত হুমায়ুন ভূঁইয়ার ছেলে। সে ২ ভাই ও ২ বোনের মধ্যে সবার ছোট। নিহতের ঘাড়ে, গলায় ও মাথায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়।

১৮ এপ্রিল, ২০২২।