মতলব উত্তরে সাড়ে ৪ লাখ টাকা অর্থদন্ড ও ৭ শ্রমিক গ্রেপ্তার

অবৈধভাবে মাটি কাটায়

মতলব উত্তর ব্যুরো
মতলব উত্তর উপজেলায় মেঘনা নদীর তীর অবৈধভাবে মাটি কাটার দায়ে ৭ জনকে অর্থদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। রোববার (২০ নভেম্বর) বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আল এমরান খান।
জানা গেছে, মতলব উত্তর উপজেলার দক্ষিণ বোরোচর ওরফে চর ওয়েস্টার গ্রামে অভিযান চালায় ভূমি প্রশাসন। এসময় এক্সকাভেটর (ভ্যাকু) ও বলগেট ব্যবহার করে মাটি কাটতে দেখা যায়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে বলগেটের কর্মচারী ছাড়া কাউকে পাওয়া যায়নি। এসময় ৭ জন শ্রমিককে গ্রেপ্তার করা হয়।
আটকদের বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ এ ২ জনকে ১ লাখ টাকা করে ২ লাখ টাকা এবং অন্য ৫ জনকে ৫ হাজার টাকা করে ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকাসহ মোট সর্বমোট ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত এ রায় দেওয়ার পর তা কার্যকর করা হয়।
জানা গেছে, প্রায় এক মাস ধরে ওই এলাকার একটি চক্র মেঘনা নদীর তীর কেটে ইটভাটায় বিক্রি করে আসছিল।
মতলব উত্তর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আল এমরান খান বলেন, যেকোন কৃষি জমিতে মাটি কাটা যাবে না। সেক্ষেত্রে জমির শ্রেণি পরিবর্তন করতে হবে আগে। এছাড়া নদী এলাকায় সরকারি মাটি কাটা আরও অপরাধ। জনস্বার্থে আগামিতে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

২১ নভেম্বর, ২০২২।