মতলব উত্তরে দিনব্যাপী প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনীর উদ্বোধন

প্রাণিসম্পদ উৎপাদনেও দেশ আজ স্বয়ংসম্পূর্ণ
………..অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল এমপি

মনিরুল ইসলাম মনির
মতলব উত্তর উপজেলায় প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী ২০২১ উদ্বোধন করা হয়েছে। প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনীতে ২৬টি স্টলে বিভিন্ন প্রাণিজ খাবারের প্রদর্শনীর পাশাপাশি উন্নত জাতের গরু, ছাগল, ভেড়া, কবুতর, পাখিসহ বিভিন্ন প্রাণি প্রদর্শন করা হয়। শনিবার (৫ জুন) উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন মাঠে এ প্রদর্শনী আয়োজন করে উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতাল। সহযোগিতা করেছে প্রাণি সম্পদ ও ডেইরী উন্নয়ন প্রকল্প। প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী কার্যক্রম প্রধান অতিথি হিসেবে উদ্বোধন করেন চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুস।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গাজী শরিফুল হাসানের সভাপতিত্বে এবং মাইন উদ্দিন চৌধুরীর পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. ফারুক হোসেন।
আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আফরোজা হাবিব শাপলা, মতলব উত্তর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মাসুদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, সহ-সভাপতি সিরাজুল ইসলাম লস্কর, শহীদ উল্লাহ প্রধান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান মো. জহির, সাধারণ সম্পাদক কাজী শরীফ, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক জিএম ফারুক, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক অ্যাড. মহসিন মিয়া মানিক, ডেইরী খামার প্রকল্পের সাধারণ সম্পাদক মো. ওয়াজকুরুনী, উপজেলা পোল্ট্রি সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ফরহাদ প্রমুখ। এসময় সরকারি কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে নুরুল আমিন রুহুল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সব সেক্টরে উন্নয়ন হচ্ছে। বাদ পড়ছে না কোন সেক্টর। খাদ্য উৎপাদনের পাশাপাশি প্রাণী সম্পদ উৎপাদনেও দেশ আজ স্বয়ংসম্পূর্ণ। খামারীরা করোনাকালীন প্রণোদনা পাচ্ছে। এটা আওয়ামী লীগ সরকারের অবদান। তিনি বলেন, মতলবের সকল উন্নয়ন কাজগুলো আমি সমাপ্ত করবো। এজন্য বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে দৌড়াদৌড়ি করছি। আপনারা আমাকে সহযোগিতা করেন এবং দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকবেন।
নুরুল আমিন রুহুল বলেন, বর্তমান সরকার সামগ্রিকভাবে দেশের উন্নয়ন করে যাচ্ছে। ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি হয়। দেশ স্বাধীন না হলে আমরা কলোনির মতো হয়ে যেতাম। আমাদের ইতিহাস ও ঐতিহ্য ধরে রাখতে হবে। সরকার আসে সরকার যায়। বিগত সরকারের চেয়ে আমাদের আওয়ামী লীগ সরকার বেশি উন্নয়ন করেছে। বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল।
তিনি আরো বলেন, প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় দুটি লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। একটি দুধের জোগান দেওয়া, অন্যটি মাংসের জোগান দেওয়া।
অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল বলেছেন, বাংলাদেশে প্রাণিসম্পদ খাত এক সময় চরম অবহেলিত ছিল। আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অবহেলার অধ্যায় অতিক্রম করে এ খাতে একটা আমূল পরিবর্তন এসেছে। এ পরিবর্তনে বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সম্পৃক্ত হয়েছে। সবাই মিলে কাজ করার ফলে এ খাত এগিয়ে যাচ্ছে। সরকারের একার পক্ষে একটি দেশের সবকিছু নিশ্চিত করা সম্ভব নয়। রাষ্ট্রের উন্নয়নে অবদান রাখা প্রত্যেক নাগরিকের দায়িত্ব। এজন্য আমরা বেসরকারি খাতকে উৎসাহিত করছি। কারণ বেসরকারি খাত রাষ্ট্রের উন্নয়নেরই অংশ। বেসরকারি খাতকে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা করবে।
০৬ জুন, ২০২১।