সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম হৃদয়ের মায়ের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার
মোহনা টেলিভিশন ও দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠের সৌদিআরব ব্যুরো ইনচার্জ মো. জাহাঙ্গীর আলম হৃদয়ের মা ফিরোজা বেগম বুধবার (১০ জুন) ভোর ৪টায় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না……রাজিউন)। চট্টগ্রামে তাঁর ছোট ছেলে আকতার হোসেন রিপনের বাসায় বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৬৫ বছর।
বুধবার বাদজোহর শাহরাস্তি পৌরসভার কৃষ্ণপুর পাটোয়ারী বাড়িতে জানাজা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে মরহুমাকে দাফন করা হয়। মরহুমা ফিরোজা বেগম মৃত্যুকালে ৩ মেয়ে ও ৫ ছেলেসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
সাংবাদিক ও নাট্যকার মো. জাহাঙ্গীর আলম হৃদয়ের মায়ের মৃত্যুতে শাহরাস্তি প্রেসক্লাবসহ স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা গভীর শোক ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।
জানা যায়, ফিরোজা বেগম একজন নামাজি ও ভালো মানুষ ছিলেন। তাঁর স্বামী মরহুম আবদুল খালেক পাটোয়ারী ২০১২ সালে মৃত্যুবরণ করেন। তিনি চট্টগ্রামস্থ নাছিরাবাদ টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টারের অটো মেকানিকাল ডিপার্টমেন্টের কর্মকর্তা ছিলেন।
মরহুমার এক ছেলে মো. আবদুল জলিল মানিক চট্টগ্রামের রেকিট এন্ড বেনকিজার কোম্পানির ম্যানেজার, মো, খোরশেদ আলম ব্যবসায়ী, অ্যাড. এমএস আলম পাটোয়ারী চট্টগ্রাম জজকোর্টের আয়কর উপদেষ্টা, মো. জাহাঙ্গীর আলম হৃদয় সৌদি আরবের ঢাকা মেডিকেল সেন্টারের পাবলিক রিলেশন অফিসার, প্রবাসী সেবা কেন্দ্র এটুআই, ইডিসির মার্কেটিং ডিরেক্টর, সাংবাদিক ও নাট্যকার এবং ছোট ছেলে চট্টগ্রামস্থ প্রচেষ্টা ফিজিওথেরাপি ও প্রতিবন্ধী সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক আকতার হোসেন রিপন এবং নাতি ইঞ্জিনিয়ার সোহরাব হোসেন ও চট্টগ্রাম ওয়েল ফুড কোম্পানির এরিয়া মেনেজার মাইন উদ্দিন বাবলু।
মরহুমার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে সবার কাছে পরিবারের পক্ষ থেকে দোয়া চাওয়া হয়েছে। মহান আল্লাহ যেন উনাকে জান্নাতবাসী করেন।

১০ জুন, ২০২০।