হাজীগঞ্জে প্রস্তুত ৪৬টি আশ্রয় কেন্দ্র, গণসচেতনতায় মাইকিং

সুপার সাইক্লোন ‘আম্পান’

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্
হাজীগঞ্জে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট প্রবল ঘূর্ণিঝড় সুপার সাইক্লোন ‘আম্পান’ মোকাবিলায় সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিয়েছে উপজেলা প্রশাসন ও পৌরসভাসহ সব ইউনিয়ন পরিষদ। ইতোমধ্যে প্রস্তুত করা হয়েছে ৪৬টি আশ্রয় কেন্দ্র। এছাড়া দুর্যোগ মোকাবেলায় সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভবনগুলোতে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।
এসব আশ্রয় কেন্দ্রে দুর্গত লোকজনের পাশাপাশি মূল্যবান সামগ্রী এবং পশুপাখি নিয়ে আশ্রয়গ্রহণ করা যাবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) প্রকৌশলী মো. জাকির হোসেন। গণসচেতনতার লক্ষ্যে গত দুইদিন ধরে উপজেলা প্রশাসন ও পৌরসভার পক্ষ থেকে মাইকিং করা হয়েছে।
তিনি বলেন, যাদের বাড়ি-ঘর ঝুঁকিপূর্ণ তাদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আশ্রয়ণ কেন্দ্রে আশ্রয় নিতে বলা হয়েছে। আশ্রয় কেন্দ্রে লোকজনের পাশাপাশি মূল্যবান জিনিসপত্র ও গৃহপালিত পশুপাখিসহ রাখা যাবে। আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে সুপেয় পানিসহ যাবতীয় সব সুযোগ-সুবিধা থাকবে বলে তিনি জানান।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বৈশাখী বড়ুয়া বলেন, সুপার সাইক্লোন ‘আম্পান’ মোকাবিলায় সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে আশ্রয় কেন্দ্রসহ উপজেলার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এ বিষয়ে কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে সার্বক্ষণিক তদারকি করা হবে বলে তিনি জানান।

২১ মে, ২০২০।