হাজীগঞ্জে ভূমি দাতাদের মাঝে সাড়ে ৪ কোটি টাকার চেক বিতরণ

প্রধানমন্ত্রীর অবদানেই উৎকোচ ও হয়রানি ছাড়া তিনগুন অর্থ পাচ্ছেন ভূমিদাতারা
….জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান



মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্
জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে হাজীগঞ্জে বিদ্যুতের পূর্বাঞ্চলীয় গ্রীড নেটওয়ার্কের পরিবর্ধণ এবং ক্ষমতাবর্ধণ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় কচুয়া ২৩০/১৩২ কেভি জিআইএস গ্রীড উপকেন্দ্র নির্মাণের জন্য হাজীগঞ্জে উপজেলার টোরাগড় মৌজায় ০৯/১৮-১৯নং এল,এ কেসের মাধ্যমে অধিগ্রহণকৃত ভূমির ক্ষতিপূরণের চেক ভূমিদাতাদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে।
গতকাল বুধবার দুপুরে জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ১৪ জন ভূমি দাতার মাঝে ৪ কোটি ৪৭ লাখ ২ হাজার ৩১৫ টাকার চেক বিতরণ করেন। এ সময় তিনি বলেন, উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কাজ করছে সরকার। যার ধারাবাহিকতায় হাজীগঞ্জে বিদ্যুতের উপ-কেন্দ্র নির্মাণ করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, বিদ্যুতের এই উপ-কেন্দ্রটি চালু হলে, চাহিদার চেয়ে ৫গুন বিদ্যুৎ সরবরাহ করা যাবে। এতে করে পুরো জেলাবাসী এই সুবিধা ভোগ করতে পারবে। তিনি ভুমিদাতাদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা ভুমির ক্ষতিপুরণ হিসেবে মৌজা মূল্যের তিনগুন দাম পাচ্ছেন। এ ক্ষেত্রে কাউকে ন্যূনতম উৎকোচ প্রদান বা কোন প্রকার হয়রানি ছাড়াই এই সুবিধা গ্রহণ করছেন। যা সম্ভব হয়েছে, শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদানের কারনে।
জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমান খান আরো বলেন, একসময় ভূমি অধিগ্রহণকে মানুষ ভয় পেতো। কিন্তু এখন অধিগ্রহণের কথা শুনলে মানুষ খুশি হয়। স্বেচ্ছায় তাদের সম্পদ সরকারের হাতে তুলে দিতে চায়। এর মূল কারণ হচ্ছে, মানুষ এখন ন্যায্য মূল্যের চেয়ে বেশী দাম পাচ্ছে। অন্য দিকে কোন প্রকার উৎকোচ, হয়রানি বা জটিলতামুক্ত সেবা পাচ্ছে। যা সরকারের অন্যতম বড় সফলতা বলে তিনি জানান।
বিদ্যুৎ উপ-কেন্দ্রের সুবিধা উল্লেখ করে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, বিদ্যুতের পূর্বাঞ্চলীয় গ্রীড নেটওয়ার্কের পরিবর্ধণ এবং ক্ষমতাবর্ধণ শীর্ষক প্রকল্প পরিচালক এ.কে.এম গাউছ মহিউদ্দিন আহমেদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জামান, হাজীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন ও ভূমিদাতা রুহুল আমিন প্রমুখ।
বক্তব্য শেষে ভূমিদাতা মমিন মিজি, আবু বক্কর, কুদ্দুছুর রহমান, ইকবাল হোসেন মিয়াজী, আব্দুল মতিন, মো. দেলোয়ার হোসেন, আবুল বাসার, পারবিন আক্তার, রেহেনা বেগম, শিরিনা বেগম, মো. তরিক উল্যাহ্, মো. ছেফায়েত উল্যাহ্, মো, কবির হোসেন ও মো. ইয়াছিনের হাতে নিজ নিজ চেক তুলে দেন, জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খানসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ।
ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অমিত চক্রবর্তীর সঞ্চালনায় চেক বিতরণী অনুষ্ঠানে, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বৈশাখী বড়ুয়া, ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ সফিকুল ইসলাম মীরসহ প্রশাসন ও বিদ্যুৎ প্রকল্পের অন্যান্য কর্মকর্তা এবং জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, পূর্বাঞ্চলীয় গ্রীড নেটওয়ার্কের পরিবর্ধণ এবং ক্ষমতাবর্ধণ শীর্ষক প্রকল্পের সরকার ৫একর ভূমি অধিগ্রহণ করেছে। যার ক্রয়মূল্য ২৫ কোটি ৯৩ লাখ ২০ হাজার ৮৩৪ টাকা ২৪ পয়সা। যা ধারাবাহিকভাবে ভূমি দাতাদের মাঝে চেকের মাধ্যমে বিতরণ করা হচ্ছে। গতকাল বুধবার উপস্থিত ১৪ জন ভূমি দাতার মাঝে ৪ কোটি ৪৭ লাখ ২ হাজার ৩১৫ টাকা ৮৮ পয়সা বিতরণ করা হয়েছে। বাকীদের আগামি ১৫ দিনের মধ্যে তাদের চেক গ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে যোগাযোগের অনুরোধ করেন ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা।