রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় কচুয়ায় ইমরানের জানাজা ও দাফন

স্টাফ রিপোর্টার
রাষ্ট্রীয় মর্যাদা শেষে ফায়ার সার্ভিসের ফায়ারম্যান লিডার ইমরান হোসেন মজুমদারের (৪০) জানাজা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার (৭ জুন) সকাল ৯টায় কচুয়া উপজেলার উত্তর কচুয়ায় ইউনিয়নের সিংড্ডা গ্রামে জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন হয়।
ইমরান হোসেন মজুমদার চট্টগ্রামের সীতাকু-ে বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকা-ের ঘটনায় নিহত হন। পরবর্তীতে পরিবারের সদস্যরা ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে মরদেহ সনাক্ত করে বাড়িতে নিয়ে আসেন। সকালে তার বাড়ির সামনে হাজারো মানুষের উপস্থিতিতে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।
এদিকে জানাজার আগে চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের উপ-সহকারী পরিচালক সাহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে রাষ্ট্রীয়ভাবে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।
জানা যায়, নিহত ইমরান মজুমদার বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিসে ২০০১ সালে ফায়ারম্যান হিসেবে যোগদান করেন। তিনি কচুয়া উপজেলার উত্তর কচুয়ায় ইউনিয়নের সিংড্ডা গ্রামের মরহুম মকবুল হোসেনের ছেলে। তার দুই সন্তানসহ ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী রয়েছে।
চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক সাহিদুল ইসলাম বলেন, ফায়ার সার্ভিসের ইন্সপেক্টর জসীমউদ্দীনের তত্ত্বাবধানে গত সোমবার রাতে কুমিল্লা থেকে নিহত এমরান হোসেন মজুমদারের মরদেহ চাঁদপুরে নিয়ে আসা হয়। আমি নিহতের পরিবারের সাথে কথা বলেছি। নিহতের পরিবার আমাদের পাশে পাবেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. ফরিদ বলেন, ইমরান ভালো মনের মানুষ ছিল। তাকে গ্রামের মানুষ অত্যন্ত ভদ্র ও ভালো মানুষ হিসেবে জানেন। তার মৃত্যুতে গ্রামবাসী শোকাহত। ইমরানের জানাজায় প্রায় দুই হাজার মানুষ অংশ নেয়।

০৮ জুন, ২০২২।